meta name="google-site-verification" content="xjowQsHoQ-Mvf4cvToRhR1jibQ34TLi69aHBFwC5vc" /> রসুনের অদ্ভূত গুনাগুন যা আপনাকে সুস্থ রাখার জন্য উপযোগী - HEALTH PROBLEM SOLVE

রসুনের অদ্ভূত গুনাগুন যা আপনাকে সুস্থ রাখার জন্য উপযোগী



মানব দেহের বিভিন্ন উপকারে রসুন একান্ত প্রয়োজনীয় |রসুন দুইপ্রকার  - (1) বহুকোষী রসুন, যার বোটানিক্যাল নাম Allium Sativum linn . (2) এককোষী রসুন, যার বোটানিক্যাল নাম Allium Ampeloprasum Iinn. এককোষী রসুনের উপকার বেশী |

• রসুনের গুনাগুন :-


রসুনে আছে ভিটামিন A, B, C, D, ক্যালসিয়াম  ফসফরাস ,আয়রন, আয়োডিন এবং উগ্রশক্তির জীবাণুনাশক 6 টি শক্তি |কয়েক বছর পূর্বে রসুনকে কেন্দ্র করে একটি আলোচনাচক্রের আয়োজন করা হয়েছিল ক্যালিফোর্নিয়া শহরে |এই আলোচনাচক্রে বিশেষজ্ঞ বৈজ্ঞানিকরা উপস্থিত ছিলেন |এক এক দেশে এক একটি বিশেষ রোগের উপর তাঁরা পরীক্ষা নিরীক্ষা চালাচ্ছেন |তাতে জানা যায় - বাহ্যপ্রয়োগে সর্বপ্রকার ফোঁড়ায়, বোলতা এবং বিছের কামড়ে রসুন প্রয়োগে ভালো ফল পাওয়া যায় |আভ্যন্তরীন প্রয়োগে - ধমনীর সঙ্কোচনে,কোষ্ঠবদ্ধতায়, হাতে পায়ে খিল ধরায়, ইনফ্লুয়েঞ্জায় , সর্দিকাশির প্রবণতায় ,হাঁপানিতে ,গলাবুক জ্বালায়, পিত্তথলীর পাথর, হাই ব্লাড প্রেসার, অর্শরোগে, স্নায়বিক দুর্বলতায়, নানাপ্রকার চর্মরোগে, গলগন্ডে, ক্রিমিতে ,হুপিং কাশিতে, বমিতে, বুকধরপড়ানিতে প্রয়োগ করে ভালো ফল পাওয়া গেছে |


• রসুন খাবার নিয়ম :-

1) ঘিয়ে বা তেলে ভেজে শাক কিংবা তরকারীর সাথে খাওয়া যায় |

2) আটা বা ময়দার সাথে রসুন বেটে রুটি বা লুচি করে খাওয়া যায় |

3) ছাতুর সাথে রসুন খাওয়া যায় |

4) গরম দুধের সাথে রসুন খাওয়া যায় |

5) মধুর সাথে রসুন খাওয়া যায় |

6) কাঁচা রসুন বা রসুন সিদ্ধ করে আহারের প্রথম গ্রাসের সাথে খাওয়া যায় |


• রসুনের দুর্গন্ধ দূর করার উপায় :-

রসুনের খোসা ছাড়িয়ে টুকরো করে টক দই এর মধ্যে ডুবিয়ে রেখে পরদিন খাবার আগে জলে ধুয়ে নিয়ে খেলে গন্ধ লাগবে না ও খাদ্যগুণ বজায় থাকবে |


• বিভিন্ন রোগে রসুনের ব্যবহার :-

1) বাতের বেদনায় :-

প্রতিদিন 1 কোয়া রসুন গরম ভাতের সঙ্গে চিবিয়ে খেতে হবে |এছাড়া 50 গ্রাম সরষের তেলে 10 কোয়া রসুন ভেজে সেই তেল দিনে দুবার মালিশ করতে হবে আক্রান্ত জায়গায় |

2) অকাল বার্ধক্য রোধ :-

প্রতিদিন 2 কোয়া করে রসুন ভেজে বা বেটে তরকারীর সাথে বা আটা ,ময়দা ,ছাতুর সাথে মিশিয়ে খেতে হবে |

3) পুরনো ঘা বা ক্ষতে :-

2 - 3 কোয়া রসুন বেটে ক্ষতে লাগাতে হবে পরপর কয়েকদিন |

4) পায়ের তলায় গুপো ও কড়াতে :-

রসুনের 1 টি  কোয়া আধখানা করে কেটে কড়ার  ওপর লাগিয়ে কোন কিছু দিয়ে আটকে দিতে হবে |এভাবে পর পর কয়েকদিন করলে কড়া সেরে যাবে |

5) পেটের বায়ুতে :-

1 কাপ ঠান্ডা জলে 3 - 4 ফোঁটা রসুনের রস মিশিয়ে প্রতিদিন সকালে খেতে হবে |

6) যৌবনশক্তি ধরে রাখার জন্য :-

প্রতিদিন 2 চামচ আমলকির রস এবং 2 কোয়া রসুন বাটা মিশিয়ে খেতে হবে অন্ততঃ দুমাস |

7) শরীর ক্ষয়ে :-

এক কাপ দুধে 2 কোয়া রসুন সিদ্ধ করে সেই দুধ খেতে হবে প্রতিদিন |এতে ক্ষয় বন্ধ হয়ে শরীরের শক্তি ও ওজন বৃদ্ধি হয় |

8) মাথা ধরা :-

বায়ুর জন্য মাথা ধরলে 1 - 2 ফোঁটা রসুনের রস নস্যির মতো নাকে টানলে মাথাধরা সেরে যাবে |

9) টি. বি .প্রতিরোধে :-

প্রতিদিন 1 কোয়া করে রসুন বাটা গরম দুধে মিশিয়ে খেলে টি .বি .হওয়ার ভয় থাকে না |

10) শুক্রতারল্যে :-

এক কাপ গরম দুধের সাথে 2কোয়া রসুন বাটা খেলে শুক্রতারল্য দূর হয় |অস্থির বল বাড়ে |অস্থির ক্ষয় বন্ধ হয় |

No comments

Theme images by ImagesbyTrista. Powered by Blogger.